রবিবার,  ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ,  ১৫ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ,  রাত ১০:০৮

আন্দোলন, সংগ্রাম, নির্বাচনের প্রস্তুতি নিতে বললেন খালেদা

ডিসেম্বর ২৪, ২০১৭ , ২০:২০

স্টাফ রিপোর্টার

দলীয় নেতাকর্মীদের আন্দোলন, সংগ্রাম, নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি নিতে বলেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।
এছাড়া তিনি ঐক্যের আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, আগামী দিনে যে কর্মসূচি আসবে, সে কর্মসূচির জন্য প্রস্তুত হতে হবে। আন্দোলন, সংগ্রাম, নির্বাচন সবকিছুর জন্য প্রস্তুতি নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে।
রোববার (২৪ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় রাজধানীর গুলিস্তানে ঢাকা মহানগর নাট্যমঞ্চে জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দলের দ্বিবার্ষিক সম্মেলন ও মুক্তিযোদ্ধা সমাবেশে এসব কথা বলেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।
খালেদা জিয়া বলেন, আওয়ামী লীগের শৃঙ্খল থেকে মুক্ত হতে হলে আমাদের আরেকবার জেগে উঠতে হবে। সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। অন্যান্য রাজনৈতিক দল যারা আছে, তাদেরকেও আহ্বান জানাবো, আসুন, আপনারা আমরা সবাই ঐক্য করি। ঐক্যবদ্ধ হয়ে অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করি। গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করি। নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করি।
তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ মাঠে গিয়ে ভোট চাচ্ছে আর আমরা ঘরে বসেও সমাবেশ করতে পারবো না, এটা তো কখনো হতে পারে না। তাই, মুক্তিযোদ্ধা ভাইদেরকে বলতে চাই, আসুন, যদিও আপনাদের বয়স হয়েছে জানি, কিন্তু অভিজ্ঞতা আছে। সেই অভিজ্ঞতার আলোকে দেশকে স্বাধীন করেছিলেন। সেই স্বাধীন দেশ আওয়ামী লীগের জন্য আজকে আমরা পরাধীনতার শৃঙ্খলে আবদ্ধ। কাজেই আওয়ামী লীগের শৃঙ্খলমুক্ত হতে হবে।
খালেদা জিয়া বলেন, আমাদের মাধ্যমেই দেশে বহুদলীয় গণতন্ত্র এসেছিল, জিয়াউর রহমানের হাত ধরে। আবারও বিএনপির মাধ্যমে এই দেশে বহুদলীয় গণতন্ত্র পুনর্প্রতিষ্ঠিত হবে।
মুক্তিযোদ্ধা ও বিএনপির কথা শুনলে সরকারের মাথা খারাপ হয়ে যায় উল্লেখ করে বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, তারা (সরকার) মুক্তিযোদ্ধাদের সমাবেশের অনুমতি নিয়েও গড়িমসি করেছে। এই হলো মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি আওয়ামী লীগের প্রীতি ও সম্মান। তারা আসলে মুক্তিযোদ্ধাদেরকে ভয় পায়। মুক্তিযোদ্ধাদের অবদান অনেক বেশি। আওয়ামী লীগ কাউকে সম্মান দিতে জানে না। তাই, জনগণও তাদেরতে সম্মান দেয় না।
রাষ্ট্রীয় কর্মসূচিতে বিএনপি দাওয়াত পায় না জানিয়ে খালেদা জিয়া বলেন, সত্যিকারের মুক্তিযোদ্ধাদেরকেও এসব প্রোগ্রামে দাওয়াত করা হয় না।
বিএনপি জোটের অন্যতম শরিক বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব) সৈয়দ মুহাম্মদ ইব্রাহিম বীর প্রতীককে দেখিয়ে তিনি বলেন, এই যে আমাদের ইব্রাহিম সাহেব, তিনি যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা। তাকে ১৬ ডিসেম্বর প্যারেড গ্রাউন্ডে দাওয়াত দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তিনি দাওয়াত পাওয়ার পরও তিনি ভেতরে প্রবেশ করতে পারেননি।
পাকিস্তানি কায়দায় দেশ চলছে মন্তব্য করে বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, আওয়ামী লীগ ছাড়া সবার দাবি সবার অংশগ্রহণে আমরা নির্বাচন চাই। আমাদের দাবি নির্বাচন হতে হবে অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ। শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় রেখে হবে না।
মহান মুক্তিযুদ্ধে প্রতিবেশি ভারতের অনেক অবদান ছিল উল্লেখ করে খালেদা জিয়া বলেন, তারা (ভারত) স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় আমাদেরকে আশ্রয় দিয়েছে। নানাভাবে সহযোগিতা করেছে। যুদ্ধ শেষে আমাদের জনগণ দেশের টানে ফিরে এসেছিলেন।
আ‌য়োজক সংগঠ‌নের সভাপতি ইসতিয়াক আজিজ উলফাতের সভাপ‌তি‌ত্বে আরো বক্ত‌ব্যে দেন, বিএন‌পির মহাস‌চিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী ক‌মি‌টির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হো‌সেন, ব্যা‌রিস্টার মওদুদ আহমদ, মির্জা আব্বাস, ড. আব্দুল মঈন খান, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান, চেয়ারপারস‌নের উপ‌দেষ্টা আব্দুস সালাম।
এছাড়াও বিএন‌পি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের শরিক লিবা‌রেল ডে‌মো‌ক্রে‌টিক পা‌র্টির চেয়ারম্যান ড. কর্নেল (অব.) অলি আহমেদ, বাংলা‌দেশ কল্যাণ পা‌র্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনা‌রেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইব্রাহিম (বীর প্রতীক) প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
মুক্তিযোদ্ধা দলের এই সম্মেলনে ইসতিয়াক আজিজ ইলফাত ও সাদেক আহমেদ খান যথাক্রমে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে পুনর্নির্বাচিত হন। খালেদা জিয়া তাদের নাম ঘোষণা করে দ্রুত পূর্ণাঙ্গ কমিটি করার আহ্বান জানান।

Total View: 1182

    আপনার মন্তব্য





সারাদেশ

কক্সবাজার

কিশোরগঞ্জ

কুড়িগ্রাম

কুমিল্লা

কুষ্টিয়া

খাগড়াছড়ি

খুলনা

গাইবান্ধা

গাজীপুর

গোপালগঞ্জ

চট্টগ্রাম

চাঁদপুর

চাঁপাইনবাবগঞ্জ

চুয়াডাঙা

জয়পুরহাট

জামালপুর

ঝালকাঠী

ঝিনাইদহ

টাঙ্গাইল

ঠাকুরগাঁও

ঢাকা

দিনাজপুর

নওগাঁ

নড়াইল

নরসিংদী

নাটোর

নারায়ণগঞ্জ

নীলফামারী

নেত্রকোনা

নোয়াখালী

পঞ্চগড়

পটুয়াখালি

পাবনা

পিরোজপুর

ফরিদপুর

ফেনী

বগুড়া

বরগুনা

বরিশাল

বাগেরহাট

বান্দরবান

ব্রাহ্মণবাড়িয়া

ভোলা

ময়মনসিংহ

মাগুরা

মাদারীপুর

মানিকগঞ্জ

মুন্সিগঞ্জ

মেহেরপুর

মৌলভীবাজার

যশোর

রংপুর

রাঙামাটি

রাজবাড়ী

রাজশাহী

লক্ষ্মীপুর

লালমনিরহাট

শরীয়তপুর

শেরপুর

সাতক্ষীরা

সিরাজগঞ্জ

সিলেট

সুনামগঞ্জ

হবিগঞ্জ

Flag Counter