শুক্রবার,  ১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ,  ২রা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,  ভোর ৫:৫৫

জাল দলিলের মাধ্যমে পুলিশ সুপারের বাসভবন দখলের চেষ্টা, গ্রেফতার-২

ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২১ , ২১:৩১

সংলাপ ৭১ প্রতিবেদক
জাল দলিলের মাধ্যমে শরীয়তপুর পুলিশ সুপারের বাসভবন দখলের চেষ্টা করছিলেন এক প্রতারকচক্র। সেই প্রতারকচক্রের ২ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ।
১৭ ফেব্রুয়ারি বুধবার রাতে শরীয়তপুর পৌরসভার ধানুকা গ্রাম থেকে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত প্রতারকদের বিরুদ্ধে ৫ দিনের রিমান্ড চাওয়া হয়েছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গ্রেফতারকৃত প্রতারক চক্রের প্রধান হোতা হলেন শরীয়তপুর জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক সালাম মাদবর। তিনি দীর্ঘ ২৫ বছর যাবৎ নির্বাচনবিহীন জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করে আসছেন। আর এই দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি জালিয়াত চক্রের নেতৃত্ব দিয়ে আসছিলেন।
এজাহার সূত্রে জানা যায়, শরীয়তপুর সদর উপজেলার ৮১ নং উত্তর মধ্যপাড়া মৌজার এসএ-১ নং খাস খতিয়ানের ৯৬, ৯৭, ৯৯, ১০০, ১১১, ১১২, ১১৬, ১১৯, ১২৮, ১২৯, ১৩১ ও ১৩২ নং দাগভুক্ত সরকারী ভূমি ২০৫ এবং ২০৬ নং খতিয়ান তৈরী করে কথিত মথুরা মোহন সাহা গংদের নামে জাল মালিকানা সৃষ্টি করে স্বর্ণঘোষ গ্রামের মৃত আবুল হাসেম মাদবরের সন্তান আবদুস সালাম মাদবর, আবুল বাসার মাদবর, আবুল কালাম আজাদ মাদবর, আবু আলম মাদবর, জাহাঙ্গীর মাদবর, শামসুন্নাহার বেগম, মাকসুদা বেগম, নুরুন্নাহার বেগম ও শাহনাজ বেগমের নামে জাল কাগজপত্র তৈরি করেন। পরবর্তীতে বিভিন্ন আদালতের মাধ্যমে মামলা করে আদালতের রায়ও সংগ্রহ করে। এরপর নামজারীর জন্য জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে ধর্ণা দেয়া শুরু করেন। এক পর্যায়ে প্রতারকচক্রটি পুলিশ সুপারকে ম্যানেজ করার চেষ্টা করেন।
পুলিশ সুপারের কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, ১৯৭৭ সাল থেকে উল্লেখিত দাগের বাড়িটি পুলিশ সুপারের বাস ভবন হিসেবে ব্যবহার হয়ে আসছে। জালিয়াত চক্রটি ১৯৮৫ সালে ৮৫৫ নম্বর দলিলের মাধ্যমে ভুয়া মালিকানা দাবী করে আসছে।
শরীয়তপুর পৌরসভা ভূমি অফিসের তহশীলদার এবং মামলার বাদী জুয়েল হোসেন বলেন, পুলিশ সুপারের বাসভবনটি সরকারী সম্পত্তি। জালিয়াত চক্রটি সেই বাসভবনের জাল কাগজপত্র তৈরী করে দখলের পায়তারা করছিলো। আমি এই সংবাদ পেয়ে আমার উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলাপ করি। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশক্রমে জালিয়াত চক্রের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করি। সেই অভিযোগের প্রেক্ষিতে জালিয়াত চক্রের ২ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে ডিবি পুলিশ।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সাইফুল আলম বলেন, এজাহারে উল্লেখিত জালিয়াত চক্রের ২ সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্য আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে ৫ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে শরীয়তপুরের পুলিশ সুপার এস.এম. আশরাফুজ্জামানের সাথে মুঠোফোনে আলাপকালে তিনি বলেন, ডিবি পুলিশ অভিযান চালিয়ে জমির ভুয়া কাগজপত্র তৈরীর মূল হোতাসহ দুই আসামীকে গ্রেপ্তার করেছে। তাদের বিরুদ্ধে পালং মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Total View: 229

    আপনার মন্তব্য





সারাদেশ

কক্সবাজার

কিশোরগঞ্জ

কুড়িগ্রাম

কুমিল্লা

কুষ্টিয়া

খাগড়াছড়ি

খুলনা

গাইবান্ধা

গাজীপুর

গোপালগঞ্জ

চট্টগ্রাম

চাঁদপুর

চাঁপাইনবাবগঞ্জ

চুয়াডাঙা

জয়পুরহাট

জামালপুর

ঝালকাঠী

ঝিনাইদহ

টাঙ্গাইল

ঠাকুরগাঁও

ঢাকা

দিনাজপুর

নওগাঁ

নড়াইল

নরসিংদী

নাটোর

নারায়ণগঞ্জ

নীলফামারী

নেত্রকোনা

নোয়াখালী

পঞ্চগড়

পটুয়াখালি

পাবনা

পিরোজপুর

ফরিদপুর

ফেনী

বগুড়া

বরগুনা

বরিশাল

বাগেরহাট

বান্দরবান

ব্রাহ্মণবাড়িয়া

ভোলা

ময়মনসিংহ

মাগুরা

মাদারীপুর

মানিকগঞ্জ

মুন্সিগঞ্জ

মেহেরপুর

মৌলভীবাজার

যশোর

রংপুর

রাঙামাটি

রাজবাড়ী

রাজশাহী

লক্ষ্মীপুর

লালমনিরহাট

শরীয়তপুর

শেরপুর

সাতক্ষীরা

সিরাজগঞ্জ

সিলেট

সুনামগঞ্জ

হবিগঞ্জ

Flag Counter