মঙ্গলবার,  ১১ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ,  ২৮শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,  রাত ১০:২১

দ্বিতীয়বার সংলাপে বসতে চিঠি দিয়েছে ঐক্যফ্রন্ট

নভেম্বর ৪, ২০১৮ , ২১:৪০


স্টাফ রিপোর্টার

দ্বিতীয়বার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সংলাপে বসতে আবারও চিঠি দিয়েছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। রোববার বেলা ১২টার দিকে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির কার্যালয়ে সংলাপ চেয়ে দেয়া চিঠিটি পৌঁছে দেয়া হয়। ওই চিঠি নিয়ে যান জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতা আ হ ম শফিকুল্লাহ, জগলুল হায়দার আফ্রিক ও মোশতাক আহমেদ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে সংলাপের চিঠিটি পৌঁছানোর জন্য তা গ্রহণ করেছেন আওয়ামী লীগ সভাপতির ব্যক্তিগত অফিস সহকারী মোহাম্মদ আলাউদ্দিন ও মাসুদুর রহমান।

ওই চিঠিতে ড. কামাল হোসেন বলেছেন, গত ১ নভেম্বর সংলাপ হয়েছিল। কিন্তু ঐক্যফ্রন্টের আলোচনা অসমাপ্ত রয়ে গেছে। এ জন্য আবারও আলোচনায় বসা জরুরি। ঐক্যফ্রন্টের সাত দফা নিয়ে সাংবিধানিক ও আইনগত দিক বিশ্লেষণের জন্য স্বল্প পরিসরে আলোচনা আবশ্যক। তবে ওই চিঠিতে সংলাপের কোনো দিনক্ষণ ঠিক করেননি ড. কামাল হোসেন।

শনিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর মতিঝিলে ড.কামাল হোসেনের চেম্বারে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষনেতাদের বৈঠকে আবারও সংলাপে বসতে চিঠি দেয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র ও বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। বৈঠক শেষে মির্জা ফখরুল সাংবাদিকদের জানান, এখনই তফসিল ঘোষণা না করার অনুরোধের বিষয়টিও প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করা হবে।

ঐক্যফ্রন্ট সূত্র জানায়, প্রধানমন্ত্রী সময় দিলেই নির্বাচনকালীন অন্তর্বর্তীকালীন সরকার গঠনের বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সামনে তোলা হবে। এ ক্ষেত্রে তিনি সময় না দিলে পরবর্তী সময়ে এ প্রস্তাব সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে তুলে ধরা হবে।

গত বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগ ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মধ্যে সাড়ে তিন ঘণ্টাব্যাপী সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগসহ ১৪ দলের ২২ সদস্য ও ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে ঐক্যফ্রন্টের ১৯ সদস্য এতে অংশ নেন। সংলাপে খোলামেলাভাবে অনেক বিষয় আলোচনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ঐক্যফ্রন্ট ও আওয়ামী লীগ নেতারা। তবে বহুল প্রত্যাশিত সংলাপে সন্তুষ্ট নয় জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট।

ওই দীর্ঘ সংলাপের প্রতিক্রিয়ায় ড. কামাল বলেন, সংলাপ থেকে তেমন কোনো সমাধান পাওয়া যায়নি। আর বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, আমরা এ সংলাপে সন্তুষ্ট নই। ঐক্যফ্রন্টের সাত দফা দাবি মেনে নেয়া না হলে আন্দোলন চলবে বলেও জানান তিনি।

Total View: 622

    আপনার মন্তব্য





সারাদেশ

কক্সবাজার

কিশোরগঞ্জ

কুড়িগ্রাম

কুমিল্লা

কুষ্টিয়া

খাগড়াছড়ি

খুলনা

গাইবান্ধা

গাজীপুর

গোপালগঞ্জ

চট্টগ্রাম

চাঁদপুর

চাঁপাইনবাবগঞ্জ

চুয়াডাঙা

জয়পুরহাট

জামালপুর

ঝালকাঠী

ঝিনাইদহ

টাঙ্গাইল

ঠাকুরগাঁও

ঢাকা

দিনাজপুর

নওগাঁ

নড়াইল

নরসিংদী

নাটোর

নারায়ণগঞ্জ

নীলফামারী

নেত্রকোনা

নোয়াখালী

পঞ্চগড়

পটুয়াখালি

পাবনা

পিরোজপুর

ফরিদপুর

ফেনী

বগুড়া

বরগুনা

বরিশাল

বাগেরহাট

বান্দরবান

ব্রাহ্মণবাড়িয়া

ভোলা

ময়মনসিংহ

মাগুরা

মাদারীপুর

মানিকগঞ্জ

মুন্সিগঞ্জ

মেহেরপুর

মৌলভীবাজার

যশোর

রংপুর

রাঙামাটি

রাজবাড়ী

রাজশাহী

লক্ষ্মীপুর

লালমনিরহাট

শরীয়তপুর

শেরপুর

সাতক্ষীরা

সিরাজগঞ্জ

সিলেট

সুনামগঞ্জ

হবিগঞ্জ

Flag Counter