মঙ্গলবার,  ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ,  ৭ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ,  রাত ৯:২৩

নড়িয়ায় প্রেমে ব্যর্থ হয়ে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা, ১জন আটক

মার্চ ২৩, ২০২০ , ১৪:২৮

স্টাফ রিপোর্টার
নড়িয়া উপজেলার নিলগুণ গ্রামের বিপুল কবিরাজের কন্যা ভেদরগঞ্জ সাইন্স পিরামিড স্কুলের ১০ম শ্রেণীর ছাত্রি প্রেমে ব্যর্থ হয়ে গলায় ফাসি দিয়ে আত্নহত্যা করেছে।

পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে। এ ঘটনায় নড়িয়া থানায় মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

নড়িয়া থানা ও স্থানীয় সূত্র জানায়, নড়িয়া উপজেলার নিলগুণ গ্রামের বিপুল কবিরাজের কন্যা ভেদরগঞ্জ সাইন্স পিরামিড স্কুলের ১০ম শ্রেণীর ছাত্রি স্বপ্না রানী কবিরাজ (১৫) এর সঙ্গে প্রতিবেশী সুজিত বাছারের সাথে দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠেছে। ২০১৮ সালে সুজিত বাছার স্বপ্না রানীকে ঘুমের মধ্যে ধর্ষণ করে। এ নিয়ে এলাকায় বেশ কয়েকবার দরবার শালিস হয়। কিছুদিন সুজিত বারন থাকলে পরে উভয়ের মধ্যে মোবাইল ফোনে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। মাঝে মধ্যে ছাত্রির মা লাবনী রানী মোবাইলে কথা বলতে টের পেয়ে মেয়েকে গালিগালাজ করে। কিন্তু তারা থেমে থাকেনি। এ ঘটনা জানতে পেরে সুজিত বাছারের মা পারুল রানী বাছার স্বপ্না ও তার মা লাবনী রানীকে ঘরে ডেকে নিয়ে গালি গালাজ করে। গালি গালাজ শুনে রাগে অভিমানে স্বপ্না রানী কবিরাজ রোববার দুপুর অনুমান ১টায় একটি চিরকুট লিখে রেখে নিজ ঘরের সিলিং ফ্যানের সাথে গায়ের ওড়না পেচিয়ে আত্নহত্যা করে। চিরকুটে তিনি লিখে রাখেন ”২০১৮ সালের ঘটনার জন্য আমার কোন দোষ ছিল না। ঘুমন্ত অবস্থায় আমার সাথে ওনি এ সব করছে”।
কিছুক্ষন পর তার মা লাবনী রানী এসে ঘরের দরজা বন্ধ দেখে ডাকাডাকি করে। দরজা না খোলায় দরজা ভেঙ্গে ভিতরে ঢুকে দেখে ফ্যানের সাথে ঝুলন্ত রয়েছে তার মেয়ে। আত্মচিৎকার করলে এলাকার লোকজন এসে স্বপ্নাকে ওড়না কেটে নিচে নামায়।

এ ঘটনা জানতে পেরে নড়িয়া থানার পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে পাঠায়। মামলার প্রক্রিয়া চলছে। পুলিশ সুজিত কুমার নামের একজনকে আটক করেছে।

এ ব্যাপারে স্বপ্না রানীর মামা বলেন, আমার ভাগ্নি স্বপ্না রানী কবিরাজ এর সাথে সুজিত বাছারের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। ২০১৮ সালে স্বপ্নাকে ঘুমন্ত অবস্থায় সর্বনাশ করেছিল। এ নিয়ে এলাকায় দরবার শালিস করেছে। এ ঘটনার জের ধরে সুজিত বাছারের মা রোববার সকালে তাদের ঘরে ডেকে নিয়ে স্বপ্নার মা ও স্বপ্নাকে গালি গালাজ করে। এরপর সে আত্নহত্যা করেছে। আমরা এর বিচার চাই।

নড়িয়া থানার ওসি হাফিজুর রহমান বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে লাশ উদ্ধার করেছে। লাশের পাশে একটি চিরকুট পাওয়া গেছে। ধারণা করা হচ্ছে প্রেমের সম্পর্কে ব্যর্থ হয়ে আত্মহত্যা করেছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে। একজনকে আটক করা হয়েছে।

Total View: 295

    আপনার মন্তব্য





সারাদেশ

কক্সবাজার

কিশোরগঞ্জ

কুড়িগ্রাম

কুমিল্লা

কুষ্টিয়া

খাগড়াছড়ি

খুলনা

গাইবান্ধা

গাজীপুর

গোপালগঞ্জ

চট্টগ্রাম

চাঁদপুর

চাঁপাইনবাবগঞ্জ

চুয়াডাঙা

জয়পুরহাট

জামালপুর

ঝালকাঠী

ঝিনাইদহ

টাঙ্গাইল

ঠাকুরগাঁও

ঢাকা

দিনাজপুর

নওগাঁ

নড়াইল

নরসিংদী

নাটোর

নারায়ণগঞ্জ

নীলফামারী

নেত্রকোনা

নোয়াখালী

পঞ্চগড়

পটুয়াখালি

পাবনা

পিরোজপুর

ফরিদপুর

ফেনী

বগুড়া

বরগুনা

বরিশাল

বাগেরহাট

বান্দরবান

ব্রাহ্মণবাড়িয়া

ভোলা

ময়মনসিংহ

মাগুরা

মাদারীপুর

মানিকগঞ্জ

মুন্সিগঞ্জ

মেহেরপুর

মৌলভীবাজার

যশোর

রংপুর

রাঙামাটি

রাজবাড়ী

রাজশাহী

লক্ষ্মীপুর

লালমনিরহাট

শরীয়তপুর

শেরপুর

সাতক্ষীরা

সিরাজগঞ্জ

সিলেট

সুনামগঞ্জ

হবিগঞ্জ

Flag Counter