বুধবার,  ২৫শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ,  ১০ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ,  সকাল ৬:১৬

বঙ্গবন্ধু মেডিক্যালে চিকিৎসা নিতে রাজি খালেদা !

অক্টোবর ৬, ২০১৮ , ১১:৩৭

স্টাফ রিপোর্টার
অবশেষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে রাজি হয়েছেন কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। সেখানে তার পছন্দের ব্যক্তিগত তিনজন চিকিৎসক তাঁকে চিকিৎসা দেবেন। শনিবার অথবা রোববার খালেদা জিয়াকে বিএসএমএমইউ হাসপাতালে ভর্তি করা হতে পারে। শুক্রবার রাতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল গণমাধ্যমকে এ কথা জানিয়েছেন।

কারা সূত্র জানিয়েছে, শুক্রবার দুপুরে কারা কর্মকর্তারা হাইকোর্টের রায়ের কথা জানিয়ে খালেদা জিয়াকে বঙ্গবন্ধু মেডিক্যালে যাওয়ার জন্য অনুরোধ জানিয়েছিলেন। কিন্তু খালেদা জিয়া যেতে রাজি হননি। দু-এক দিনের মধ্যে তিনি যাবেন বলে জানিয়েছেন। কারা কর্তৃপক্ষও সেভাবেই প্রস্তুতি নিচ্ছে। খালেদা জিয়াকে চিকিৎসা দিতে প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতাল। ওই হাসপাতালের একটি ভিআইপি কেবিনে তাঁকে রাখা হবে।

এর আগে সরকারের তরফ থেকে খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতাল ও সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়ার জন্য প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু খালেদা জিয়া ওই দুটি হাসপাতালে যেতে রাজি না হওয়ার কারণে তাঁকে ওই দুটির কোনোটিতেই নেওয়া সম্ভব হয়নি।

জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেন, ‘হাইকোর্ট নির্দেশ দিয়েছেন তাঁকে (খালেদা) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়ার জন্য। সেখানে তাঁর ব্যক্তিগত তিনজন চিকিৎসক চিকিৎসা দেবেন। তাঁকে শনিবার অথবা রোববার চিকিৎসা দেওয়ার জন্য নিয়ে যাওয়া হবে। সরকার সব সময়ই আন্তরিক তাঁর চিকিৎসার ক্ষেত্রে। অনেক আগে থেকেই তো আমরা বলছি বঙ্গবন্ধু মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসা নেওয়ার জন্য। এবার হাইকোর্ট রায় দিয়েছেন।’

কারা চিকিৎসক মাহমুদুল হাসান শুভ শুক্রবার সন্ধ্যায় বলেন, ‘তিনি (খালেদা জিয়া) বঙ্গবন্ধু মেডিক্যালে গিয়ে চিকিৎসা নিতে রাজি হয়েছেন। তাঁকে দু-এক দিনের মধ্যেই সেখানে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হবে।’

এক কারা কর্মকর্তা জানান, গত বৃহস্পাতিবার রাতেই আদালতের নির্দেশনা তাঁদের কাছে পৌঁছেছে। এরপর শুক্রবার খালেদা জিয়াকে বিষয়টি জানানো হয়েছে। ওই দিনই কারা কর্মকর্তারা তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য অনুরোধ জানান। খালেদা জিয়া তাতে রাজি হননি। কারা কর্মকর্তারা হাইকোর্টের দেওয়া রায়টি তাঁকে শোনানোর সময় তিনি মনোযোগ দিয়ে শোনেন।

গত বৃহস্পতিবার দুপুরে বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের হাইকোর্ট বেঞ্চ খালেদা জিয়াকে বিএসএমএমইউ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়ার আদেশ দেন।

আদেশে খালেদা জিয়াকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি করতে এবং চিকিৎসাসেবা শুরু করতে পাঁচ সদস্যের একটি বোর্ড গঠন করার নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। বিএসএমএমইউয়ের চিকিৎসক আবদুল জলিল চৌধুরী ও বদরুন্নেসা আহমেদ এ বোর্ডে থাকবেন। অপর তিনজন সদস্য সরকার মনোনয়ন করবে। তবে ওই তিনজনের কেউই স্বাচিপ ও ড্যাবের বর্তমান বা অতীত কার্যনির্বাহী সদস্য হতে পারবেন না। বোর্ড ও কারা কর্তৃপক্ষকে অবিলম্বে খালেদা জিয়াকে বিএসএমএমইউতে ভর্তি ও চিকিৎসাসেবার ব্যবস্থা করতে বলেছেন। আদালত এও বলেছেন, আবেদনকারী (খালেদা জিয়া) তাঁর পছন্দ অনুসারে ফিজিওথেরাপিস্ট, গাইনোকলজিস্ট ও টেকনিশিয়ান নিতে পারবেন। তবে বোর্ডের অনুমোদন সাপেক্ষে তিনি বাইরে থেকেও বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক আনতে পারবেন। ইউনাইটেড বা বিশেষায়িত হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা দিতে নির্দেশনা চেয়ে গত ৯ সেপ্টেম্বর খালেদা জিয়া রিট করেন, যার ওপর গত মঙ্গল ও বুধবার শুনানি হয়। গত বৃহস্পতিবার এ বিষয়ে আদেশ দেন আদালত।

উল্লেখ্য, গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন বিচারিক আদালত। এর পর থেকে তাঁকে নাজিমুদ্দীন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে রাখা হয়েছে।

Total View: 469

    আপনার মন্তব্য





সারাদেশ

কক্সবাজার

কিশোরগঞ্জ

কুড়িগ্রাম

কুমিল্লা

কুষ্টিয়া

খাগড়াছড়ি

খুলনা

গাইবান্ধা

গাজীপুর

গোপালগঞ্জ

চট্টগ্রাম

চাঁদপুর

চাঁপাইনবাবগঞ্জ

চুয়াডাঙা

জয়পুরহাট

জামালপুর

ঝালকাঠী

ঝিনাইদহ

টাঙ্গাইল

ঠাকুরগাঁও

ঢাকা

দিনাজপুর

নওগাঁ

নড়াইল

নরসিংদী

নাটোর

নারায়ণগঞ্জ

নীলফামারী

নেত্রকোনা

নোয়াখালী

পঞ্চগড়

পটুয়াখালি

পাবনা

পিরোজপুর

ফরিদপুর

ফেনী

বগুড়া

বরগুনা

বরিশাল

বাগেরহাট

বান্দরবান

ব্রাহ্মণবাড়িয়া

ভোলা

ময়মনসিংহ

মাগুরা

মাদারীপুর

মানিকগঞ্জ

মুন্সিগঞ্জ

মেহেরপুর

মৌলভীবাজার

যশোর

রংপুর

রাঙামাটি

রাজবাড়ী

রাজশাহী

লক্ষ্মীপুর

লালমনিরহাট

শরীয়তপুর

শেরপুর

সাতক্ষীরা

সিরাজগঞ্জ

সিলেট

সুনামগঞ্জ

হবিগঞ্জ

Flag Counter