শুক্রবার,  ২২শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ,  ৮ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ,  দুপুর ১:১৯

বলিউডে চান্স পাওয়া নাবিলা সাদিয়া শরীয়তপুরের গর্ব

এপ্রিল ৩০, ২০১৮ , ০৯:২০


এম.এ ওয়াদুদ মিয়া
‘আর ইউ বাংলাদেশী’ ? এমন প্রশ্ন করা হয়েছিল নাবিলা সাদিয়া’র সোশাল হ্যান্ডেলের মেসেঞ্জারে। কিছুক্ষণ পর উত্তর আসে ‘ইয়েস’। আই এম বাংলাদেশী।
পুরো নাম নাবিলা সাদিয়া। সোশাল হ্যান্ডেলের ছবি দেখলে কখনোই মনে হবে না এই মেয়ের বাড়ি বাংলাদেশে। ছবিতে রয়েছে পশ্চিমা প্রলেপ। চলমান তথ্যের ভিত্তিতে জানা গেলো সে একজন বলিউড ফিল্মের অভিনেত্রী। তারপর অনেক কথা। আর এ কথার মাধ্যমেই বেড়িয়ে এলো তার বেড়ে ওঠার কাহিনী।


নাবিলা সাদিয়া বাংলাদেশের উত্তর জনপদের ছোট একটি শহর সৈয়দপুরে শৈশব কৈশোর কাটিয়েছেন। বর্তমানে সে অস্ট্রেলিয়ার ক্যানবেরায় থাকেন। বাবার চাকুরীর সুবাদে বাংলাদেশের যশোরে থাকা। আর সেখানেই তার জন্ম।
কিন্তু যশোরে জন্ম হলেও সেখানকার কোন স্মৃতি তার মনে নেই। তার বেড়ে ওঠা এবং পড়াশোনা সব কিছুই হয়েছে সৈয়দপুরে। ইন্টারমিডিয়েট পর্যন্ত সৈয়দপুরে লেখাপড়া করার পর চলে যান অস্ট্রেলিয়া। সেখানে অস্ট্রেলিয়ার ইউনিভার্সিটি অফ ক্যানবেরায় ব্যাচেলর্স ইন ইনফরমেশন টেকনোলজিতে পড়াশোনা এবং সে অবস্থাতেই সেখানের একটি মডেল এজেন্সিতে যুক্ত হন তিনি। পাশাপাশি একটি নাচের প্রতিষ্ঠানে যোগ দেন নাবিলা সাদিয়া।
বর্তমানে তিনি ক্যানবেরা স্কুল অব বলিউড ড্যান্সিংয়ের মেন্টর হিসেবে কাজ করছেন। মডেলিং ক্যারিয়ারকে যখন সে ধীরে ধীরে এগিয়ে নিচ্ছিলেন ঠিক তখনই বলিউডের নতুন একটি ছবিতে কাজের প্রস্তাব পান তিনি। ছবিটির নাম ‘পারিশান পারিন্দা’।


ছবিটির পরিচালক দেবেশ প্রতাপ সিং। ছবিটি মূলত গ্যাংস্টার ও আন্ডার ওয়ার্ল্ড নিয়ে তৈরী। যেখানে একজন নায়কের বিপরীতে দুজন মেয়ের চরিত্র ছিলো। এদের মধ্যে একজনের নাম রিনা এবং অপর জনের নাম মিনা। প্রথমে তার মিনা চরিত্রে কাজ করার কথা ছিলো। কিন্তু হিন্দি টানের কারণে পরবর্তীতে তাকে রিনা চরিত্রে অভিনয় করতে হয়েছে।
‘পারিশান পারিন্দা’ ছবিতে আন্তর্জাতিক শিল্পীদের নিয়ে কাজ করা হয়েছে। যার মধ্যে সিঙ্গাপুর, নিউজিল্যান্ড এবং অস্ট্রেলিয়ার বেশ কয়েক জন নামী দামী শিল্পী অভিনয় করেন। ছবিটির শুটিং গত বছর শেষ হলেও ভারত এবং অস্ট্রেলয়ায় ছবিটি মুক্তি পায় চলতি বছরের মার্চ মাসে। ‘পারিশান পারিন্দা’ ছবিতে অভিনয়ের পরই অস্ট্রেলিয়ায় তার অনেক কাজের অফার আসতে থাকে।
অতি সম্প্রতি ভারতের শীর্ষ টেলিভিশন জিটিভি অস্ট্রেলিয়ার প্রতিযোগীদের নিয়ে আয়োজন করে ‘সুপারস্টার অস্ট্রেলিয়া’ যেখানে নাবিলা সাদিয়া শীর্ষ দশে অবস্থান করেন। এ ছাড়াও সুন্দরীদের প্রতিযোগিতা ‘মিস ইন্ডিয়া ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ২০১৭’ তে প্রথম রানার আপ হন তিনি। এই অর্জনের কারণে বলিউড অভিনেতা জন আব্রাহামের সাথে ডিনার পার্টিতে অংশ নেন। জন আব্রাহামের সাথে একটি গানের নাচেও অংশ নেন নাবিলা।


নাবিলা সাদিয়া ইতিমধ্যে গ্রাজুয়েশন শেষ করেছেন। বর্তমানে তিনি কাজ করছেন অস্ট্রেলিয়ার মিডিয়াতে। কিছুদিন আগে তিনি বাংলাদেশে এসেছিলেন। দুই মাসের সফরে বেশ কিছু কাজও করেছেন তিনি। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য কাজ হলো আদনান আল রাজীবের নির্দেশনায় গ্রামীণফোন ফোরজি’র টেলিভিশন বিজ্ঞাপন, ইশতিয়াক আহমেদের নির্দেশনায় একটি কবিতার দৃশ্যায়নে মডেল হয়েছেন তিনি। তার বিপরীতে ছিলেন তরুণ অভিনেতা ইভান সাইর। এ ছাড়া ভিকি জায়েদের পরিচালনায় একটি নাটকে অভিনয় করেছেন নাবিলা।
শৈশব থেকেই সৈয়দপুরের সাংস্কৃতিক পরিমন্ডলে বেড়ে ওঠা নাবিলা সাদিয়া নাচে গানে ছিলেন অনন্য। যে কোন সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে তার ছিল পরিচ্ছন্ন উপস্থিতি। বাংলাদেশে ফিরতে চান তিনি। এ দেশের শোবিজে নিজেকে মেলে ধরতে চান অভিনেত্রী ও মডেল হিসেবে। নাবিলা সাদিয়া বলেন, ‘আমি যেহেতু মিডিয়াতে কাজ করছি, সেই কাজটি যদি আমার নিজ দেশে করতে পারি তাহলে তো কোন সমস্যা নেই।’
তিনি আরও বলেন, ‘বাংলাদেশে কয়েকটি কাজ করেছি, আমার ভালো লেগেছে। অবশ্যই আমার ফিল্মে কাজ করার ইচ্ছে। এমন অনুকূল পরিবেশ তৈরি হলে কিংবা সুযোগ হলে আমি বাংলাদেশেই স্থায়ী হবো। হাজার হলেও আমার নিজের দেশ, নিজের দেশে কাজ করার বিষয়টি নিশ্চই অনেক আনন্দের।’


কথা প্রসঙ্গে জানা যায়, নাবিলা সাদিয়ার নানা বাড়ি হচ্ছে শরীয়তপুর জেলার দক্ষিণ বালুচড়া গ্রামে। সাদিয়ার নানার নাম সুবেদার আনসার আলী। নানী সাহেরা বেগম। সাদিয়ার মায়ের নাম আমেনা বেগম এবং পিতা এম.এ মতিন। সাদিয়ার চার মামা। বড় মামার নাম আবুল কাশেম, মেঝো মামার নাম আবুল হোসেন গুলু, সেঝো মামার নাম আবুল হাসান এবং ছোট মামার নাম আবুল খায়ের। সাদিয়ার রয়েছে তিন খালা মনি। বড় খালা মনির নাম হাফিজা বেগম নিকু, মেঝো খালা মনির নাম ফাতিমা নুসরাত জাহান এবং ছোট খালা মনির নাম সুইটি নুসরাত জাহান। সাদিয়া বলিউডে চান্স পাওয়ায় তারা প্রত্যেকেই অনেক আনন্দিত এবং গর্বিত।

Total View: 1280

    আপনার মন্তব্য





সারাদেশ

কক্সবাজার

কিশোরগঞ্জ

কুড়িগ্রাম

কুমিল্লা

কুষ্টিয়া

খাগড়াছড়ি

খুলনা

গাইবান্ধা

গাজীপুর

গোপালগঞ্জ

চট্টগ্রাম

চাঁদপুর

চাঁপাইনবাবগঞ্জ

চুয়াডাঙা

জয়পুরহাট

জামালপুর

ঝালকাঠী

ঝিনাইদহ

টাঙ্গাইল

ঠাকুরগাঁও

ঢাকা

দিনাজপুর

নওগাঁ

নড়াইল

নরসিংদী

নাটোর

নারায়ণগঞ্জ

নীলফামারী

নেত্রকোনা

নোয়াখালী

পঞ্চগড়

পটুয়াখালি

পাবনা

পিরোজপুর

ফরিদপুর

ফেনী

বগুড়া

বরগুনা

বরিশাল

বাগেরহাট

বান্দরবান

ব্রাহ্মণবাড়িয়া

ভোলা

ময়মনসিংহ

মাগুরা

মাদারীপুর

মানিকগঞ্জ

মুন্সিগঞ্জ

মেহেরপুর

মৌলভীবাজার

যশোর

রংপুর

রাঙামাটি

রাজবাড়ী

রাজশাহী

লক্ষ্মীপুর

লালমনিরহাট

শরীয়তপুর

শেরপুর

সাতক্ষীরা

সিরাজগঞ্জ

সিলেট

সুনামগঞ্জ

হবিগঞ্জ

Flag Counter