বৃহস্পতিবার,  ২২শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ,  ৬ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ,  বিকাল ৫:৩৩

রাজশাহী সিটির দায়িত্ব নিলেন খায়রুজ্জামান লিটন

অক্টোবর ৬, ২০১৮ , ১১:০৫

রাজশাহী প্রতিনিধি
রাজশাহী সিটি করপোরেশনের (রাসিক) দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন।

৫ অক্টোবর, শুক্রবার বিকেল ৪টায় নগর ভবনের গ্রিন প্লাজায় রাসিক প্যানেল মেয়র-১ আনোয়ারুল আজিম আজবের কাছ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্বভার বুঝে নেন খায়রুজ্জামান লিটন। রাসিকের পঞ্চম এবং নিজের দ্বিতীয় মেয়াদে দায়িত্ব নিলেন তিনি।

এ সময় খায়রুজ্জামান লিটন সিটি করপোরেশনের ৪০ জন কাউন্সিলরের সবার হাতে হাত রেখে উন্নয়নে নগরীকে এগিয়ে নেওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, ‘রাজশাহীর উন্নয়নই আমার স্বপ্ন ও সাধনা। নির্বাচনি ইশতেহার অনুযায়ী কাজ শুরু করব। আশা করছি সেবা ও মানে রাজশাহী সিটি করপোরেশন এশিয়ার সেরা জনসেবামূলক প্রতিষ্ঠানে পরিণত হবে।’

‘বর্তমানে রাসিকে দেনা ১০১ কোটি টাকা। কিন্তু পাঁচ বছর আগে আমি ক্ষমতা ছাড়ার সময় ২১ কোটি টাকা উদ্বৃত্ত রেখে এসেছিলাম। বিএনপির সাবেক মেয়র গত বছরে রাজশাহী নগরকে ১৫ বছর পিছিয়ে দিয়ে গেছে।’

মেয়র লিটন বলেন, ‘আমি মেয়র থাকাকালে যে প্রকল্পগুলো হাতে নিয়েছিলাম সেগুলো বাস্তবায়ন না করে নষ্ট করে দিয়েছে। এবার আমার রেখা যাওয়া প্রকল্পগুলো বাস্তবায়ন করব। যার মাধ্যমে রাজশাহী মডেল নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে এক ধাপ এগুবে।’

রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার নূর-উর-রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে রাজশাহী সদর আসনের এমপি ফজলে হোসেন বাদশা, ওমর ফারুক চৌধুরী এমপি, আয়েন উদ্দিন এমপি, প্রকৌশলী এনামুল হক এমপি, আবদুল ওয়াদুদ দারা এমপি, আক্তার জাহান এমপি ছাড়াও নগরীর শিক্ষাবিদ, বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধি এবং রাসিকের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

গত ৩০ জুলাই অনুষ্ঠিত নির্বাচনে বিএনপির মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলকে ব্যাপক ভোটের ব্যবধানে হারিয়ে দ্বিতীয় দফায় মেয়র নির্বাচিত হন নগর আওয়ামী লীগ সভাপতি খায়রুজ্জামান লিটন। এর আগে ২০০৮ সালে প্রথমবার নগরপিতা নির্বাচিত হন তিনি।

মেয়র হয়ে রাজশাহীকে গ্রিন, ক্লিন ও এডুকেশন সিটিতে পরিণত করেছিলেন মেয়র লিটন। ওই মেয়াদে রাস্তাঘাটের উন্নয়ন, পদ্মাপারের সৌন্দর্য বৃদ্ধিসহ নানা ধরনের প্রকল্প বাস্তবায়ন করে রাজশাহীকে তিনি মডেল নগরীতে পরিণত করেন। কিন্তু ২০১৩ সালের নির্বাচনে বিএনপি নেতা বুলবুলের কাছে তিনি পরাজিত হন। ফলে স্থবির হয়ে পড়ে রাজশাহীর উন্নয়ন।

Total View: 583

    আপনার মন্তব্য





সারাদেশ

কক্সবাজার

কিশোরগঞ্জ

কুড়িগ্রাম

কুমিল্লা

কুষ্টিয়া

খাগড়াছড়ি

খুলনা

গাইবান্ধা

গাজীপুর

গোপালগঞ্জ

চট্টগ্রাম

চাঁদপুর

চাঁপাইনবাবগঞ্জ

চুয়াডাঙা

জয়পুরহাট

জামালপুর

ঝালকাঠী

ঝিনাইদহ

টাঙ্গাইল

ঠাকুরগাঁও

ঢাকা

দিনাজপুর

নওগাঁ

নড়াইল

নরসিংদী

নাটোর

নারায়ণগঞ্জ

নীলফামারী

নেত্রকোনা

নোয়াখালী

পঞ্চগড়

পটুয়াখালি

পাবনা

পিরোজপুর

ফরিদপুর

ফেনী

বগুড়া

বরগুনা

বরিশাল

বাগেরহাট

বান্দরবান

ব্রাহ্মণবাড়িয়া

ভোলা

ময়মনসিংহ

মাগুরা

মাদারীপুর

মানিকগঞ্জ

মুন্সিগঞ্জ

মেহেরপুর

মৌলভীবাজার

যশোর

রংপুর

রাঙামাটি

রাজবাড়ী

রাজশাহী

লক্ষ্মীপুর

লালমনিরহাট

শরীয়তপুর

শেরপুর

সাতক্ষীরা

সিরাজগঞ্জ

সিলেট

সুনামগঞ্জ

হবিগঞ্জ

Flag Counter