শুক্রবার,  ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ,  ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ,  রাত ৩:২০

লক্ষ্মীপুরে পরকীয়া প্রেমিকের সাথে পালিয়েছে ওমান প্রবাসীর স্ত্রী

জানুয়ারি ৬, ২০১৯ , ০৯:৪৭

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি

লক্ষ্মীপুরে ওমান প্রবাসী ওমর ফারুক ওরফে বাহার এর স্ত্রী দুই সন্তানের জননী হালিমা আক্তার রিমু তার পরকীয়া প্রেমিক সাহাদাত হোসেনের সাথে পালিয়ে গেছে।

এ ঘটনাটি ঘটেছে লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলায় ৩নং ইউনিয় মহাদেবপুর গ্রামের আহম্মদ উল্যাহ পাটওয়ারী বাড়িতে। এ ঘটনায় এলাকা জুড়ে ব্যাপক তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে ।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, ২০১৮ সালের ১০ ডিসেম্বর সোমবার সকালের দিকে হালিমা আক্তার রিমু স্বামী ওমর ফারুক বাহারে’র বাড়ী থেকে বাবার বাড়ি যাওয়ার কথা বলে বেরিয়ে যায়। তারপর আর ফিরে আসেনি। এ ঘটনায় থানায় সাধারণ ডায়েরী করেছে হালিমা আক্তার রিমুর পরিবার।

এ ব্যাপারে প্রবাসী ওমর ফারুক বাহারে’র বড় ছেলে রিহাব (১০)এর সাথে কথা বলে জানা যায়, তাঁর বাবা প্রবাসে থাকা কালিন মা হালিমা পরকীয়া প্রেমিক সাহাদাত হোসেনের সাথে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন জায়গায় অন্তরঙ্গ সময় কাটান। এমনকি সিএনজি দিয়ে বিভিন্ন জায়গায় ঘুরতে যেতেন।

এ ব্যাপারে প্রেমিকা হালিমা আক্তার রিমুর মা দেলোয়ারা বেগমের সাথে আলাপ কালে তিনি বলেন, আমার মেয়ে নিখোঁজ হওয়ার পর অনেক খোঁজাখুজি করেছি। কিন্তু পাইনি। এক পর্যায়ে জানতে পারি রায়পুর উপজেলার ৩নং ইউনিয়নের ২ নাম্বার ওয়ার্ড দক্ষিন চর মহনার জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে সাহাদাত হোসেন রাজিবের সাথে পালিয়ে গেছে। পরে আমরা থানায় সাধারণ ডায়েরী করেছি।

Total View: 612

    আপনার মন্তব্য





সারাদেশ

কক্সবাজার

কিশোরগঞ্জ

কুড়িগ্রাম

কুমিল্লা

কুষ্টিয়া

খাগড়াছড়ি

খুলনা

গাইবান্ধা

গাজীপুর

গোপালগঞ্জ

চট্টগ্রাম

চাঁদপুর

চাঁপাইনবাবগঞ্জ

চুয়াডাঙা

জয়পুরহাট

জামালপুর

ঝালকাঠী

ঝিনাইদহ

টাঙ্গাইল

ঠাকুরগাঁও

ঢাকা

দিনাজপুর

নওগাঁ

নড়াইল

নরসিংদী

নাটোর

নারায়ণগঞ্জ

নীলফামারী

নেত্রকোনা

নোয়াখালী

পঞ্চগড়

পটুয়াখালি

পাবনা

পিরোজপুর

ফরিদপুর

ফেনী

বগুড়া

বরগুনা

বরিশাল

বাগেরহাট

বান্দরবান

ব্রাহ্মণবাড়িয়া

ভোলা

ময়মনসিংহ

মাগুরা

মাদারীপুর

মানিকগঞ্জ

মুন্সিগঞ্জ

মেহেরপুর

মৌলভীবাজার

যশোর

রংপুর

রাঙামাটি

রাজবাড়ী

রাজশাহী

লক্ষ্মীপুর

লালমনিরহাট

শরীয়তপুর

শেরপুর

সাতক্ষীরা

সিরাজগঞ্জ

সিলেট

সুনামগঞ্জ

হবিগঞ্জ

Flag Counter